আদালত বন্ধ বা খোলা রাখার এখতিয়ার ‘প্রধান বিচারপতির’

দেশে করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। দিন দিন আশঙ্কাজনক পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসটি। এটি নিয়ন্ত্রণে সারা দেশে কঠোর লকডাউন দিয়েছে সরকার। তবে দেশের আদালতের কার্যক্রম বন্ধ বা খোলা রাখার বিষয়ে সরকার কোনো সিদ্ধান্ত দেয়নি। এ অবস্থায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আদালত বন্ধ বা খোলা রাখার এখতিয়ার প্রধান বিচারপতির।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরুর জানাজা শেষে করোনাভাইরাস পরিস্থিতে আদালতের কার্যক্রম নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির প্রাঙ্গণে আবদুল মতিন খসরুর এই জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

আইনমন্ত্রী বলেন, আদালত বন্ধ বা খোলা রাখার যে এখতিয়ার সেটা প্রধান বিচারপতির, আমার নয়। কিন্তু আমার বিশ্বাস করোনাভাইরাসের তীব্রতা বা করোনাভাইরাস যদি কমে যায় এসব বিবেচনা করে প্রধান বিচারপতি সঠিকভাবে সিদ্ধান্ত নেবেন।

আনিসুল হক বলেন, একজন মেধাবী এবং অত্যন্ত প্রজ্ঞাবান আইনজীবীর (আবদুল মতিন খসরু) মৃত্যুতে আইন অঙ্গণে একটা বিরাট শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে। আমি জানি না এই শূন্যতা পূরণ হবে কি না। তার মৃত্যুতে আমি অত্যন্তভাবে মর্মাহত হয়েছি। আমি তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *