ইউরোপে ‘অগ্রহণযোগ্য ধীরগতিতে’ ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে

বিবিসি ও এএফপি
ইউরোপের ভ্যাকসিন প্রয়োগ কর্মসূচি নিয়ে সমালোচনা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। অপ্রত্যাশিত ধীরগতিতে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হচ্ছে উল্লেখ করে সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়, এই অঞ্চলে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঢেউ আশঙ্কাজনক।
বৃহস্পতিবার ডব্লিউএইচওর ইউরোপ বিষয়ক পরিচালক হ্যান্স ক্লুগ এক বিবৃতিতে বলেন, ‘এই মহামারি থেকে বের হতে ভ্যাকসিন আমাদের সবচেয়ে বড় উপায়। কিন্তু ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে অগ্রহণযোগ্য ধীরগতিতে। এর ফলে মহামারি দীর্ঘায়িত হচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘ভ্যাকসিন উত্পাদন বৃদ্ধি করে, প্রতিবন্ধকতাগুলো দূর করে এবং আমাদের মজুত থাকা প্রত্যেকটি শিশি ব্যবহার করে এই প্রক্রিয়া (ভ্যাকসিন প্রয়োগ) অবশ্যই বেগবান করতে হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘ইউরোপে ভাইরাসের অবস্থা গত কয়েক মাসের চেয়ে এখন আরো বেশি আশঙ্কাজনক।’
বিবৃতিতে বলা হয়, ‘পাঁচ সপ্তাহ আগে ইউরোপে সাপ্তাহিক নতুন সংক্রমণের সংখ্যা ১০ লাখের নিচে নেমে এসেছিল। কিন্তু গত সপ্তাহে ডব্লিউএইচওর ইউরোপ অঞ্চলে করোনা সংক্রমণ বেড়ে গেছে। নতুন করে ১৬ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।’ এতে আরো বলা হয়, ‘ইউরোপে করোনায় মোট মৃত্যু দ্রুত ১০ লাখের দিকে এগোচ্ছে। আর মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৪ কোটি পার হতে যাচ্ছে।’
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইউরোপ অঞ্চলে মোট ৫৩টি দেশ ও অঞ্চল রয়েছে। এর মধ্যে রাশিয়াসহ কয়েকটি মধ্য এশিয়ার দেশও রয়েছে। সংস্থাটি সতর্ক করে দিয়ে জানায়, ভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণের ফলে নতুন ধরন তৈরি হওয়ার ঝুঁকি বাড়ছে। ডব্লিউএইচওর ইউরোপ বিষয়ক আঞ্চলিক জরুরি বিভাগের পরিচালক ডরিট নিটজান এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ভাইরাসের প্রতিলিপি তৈরি ও ছড়ানোর হারের সঙ্গে নতুন ধরন তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তাই প্রাথমিক রোগ নিয়ন্ত্রণের পদক্ষেপের মাধ্যমে সংক্রমণ কমানো অত্যন্ত জরুরি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *