আগস্ট ৭, ২০২০

করোনা ঠেকাতে কারফিউ আরও কঠোর করেছে সৌদি আরব

সৌদি আরবে নতুন করে আরও ১১২ জন ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় কারফিউ আরও কঠোর করেছে দেশটি। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে রিয়াদ, মক্কা ও মদিনায় বর্ধিত কারফিউ জারি হয়েছে, যা এখন বেলা ৩টা থেকে শুরু হচ্ছে। এর আগে গত সোমবার কিং সালমান এক আদেশ জারি করে বলেন, সন্ধ্যা ৭টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত সাধারণ মানুষ চলাফেরা করবে না।

এ পর্যন্ত সেখানে ১ হাজার ১২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সৌদি আরবে ৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দেশের নাগরিকদের কারফিউ মেনে বাড়িতে থাকার নির্দেশ দিয়েছে।

সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মেদ আল আবদুল্লালি বলেন, ‘ভাইরাসটি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং আমাদের নাগরিকদের স্বাস্থ্যসুরক্ষা নিশ্চিত করতে আমরা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করছি। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে তৃতীয় ব্যক্তি মারা গেছেন। মারা যাওয়া ওই ব্যক্তি বিদেশি এবং তিনি হৃদযন্ত্রের সমস্যায় ভুগছিলেন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩৩ জনের বেশি সুস্থ হয়েছে।’

সৌদি আরবের প্রধান শহর মক্কা, মদিনা ও রিয়াদের যাওয়া আসার সকল রাস্তা সুরক্ষাব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণাধীন বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা। তারা বলেছেন, সেখানে এমন কিছু লোক আছে, যারা কারফিউ না মেনে বেপরোয়া আচরণ করছে এবং তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে।

বাজার নিয়ন্ত্রণের জন্য নতুন নিয়ম জারি হয়েছে সেখানে। খোলা বাজারের ভিড় এড়িয়ে যাওয়ার জন্য অনলাইনে কেনাকাটার ওপর জোর দিয়েছে দেশটির বানিজ্য মন্ত্রণালয়।

সৌদি ফেরত ১০ হাজারেরও বেশি হাজিকে কোয়ারেন্টিন করেছে তুরস্ক। এদের মধ্যে একজনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে দেশটি। গতকাল সয়লু বলেন, তুরস্কসহ কোনো দেশকেই করোনাভাইরাসের ঝুঁকি সম্পর্কে জানায়নি সৌদি আরব। তথ্যসূত্র: আল–জাজিরা

বাংলাদেশ রিপোর্ট

সবগুলো লেখা দেখুন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

যুক্ত থাকুন

নির্ভরযোগ্য সংবাদের জন্য আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন।

বাংলাদেশ রিপোর্ট পরিবারে যুক্ত থাকুন:

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আমরা আছি নানান কনটেন্ট আর পরামর্শ নিয়ে । আমাদের সাথে যুক্ত হতে নিচের আইকনগুলোতে ক্লিক করুন:

বাংলাদেশ রিপোর্ট

পরীক্ষামূলক কার্যক্রম চলছে। যেকোনো পরামর্শ এবং অভিযোগ সাদরে গ্রহণ করা হবে। ধন্যবাদ।